Day: May 24, 2019

ওসমানী মেডিক্যাল: ডাক্তারের চেয়ে দালাল বেশি

ওসমানী মেডিক্যাল: ডাক্তারের চেয়ে দালাল বেশি

প্রধান সংবাদ, সিলেট
সিলেট ওসমানী হাসপাতালের ঘরে বাইরে দালাল আর দালাল।অবস্থাদৃষ্টে মনে হয় সেখানে ডাক্তারের চেয়ে বেশি দালাল। এই দালালচক্রের কবলে পড়ে সহজ-সরল নিরীহ মানুষেরা হন প্রতারিত। নিরাপত্তারক্ষীদের বেপরোয়া চাঁদাবাজি আর দালালচক্রের দৌরাত্মের কারণে প্রতিনিয়ত হয়রানির শিকার হচ্ছেন রোগীসাধারণ। ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিরাপত্তারক্ষীদের চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ দেয়া হয়। দরপত্র আহবানের মাধ্যমে বিভিন্ন কোম্পানি নামমাত্র বেতনে এসব নিরাপত্তারক্ষী নিয়োগ করে। চার লাখ টাকা ঘুষ দিয়ে দুই বছরের জন্য একেকজন নিরাপত্তারক্ষী নিয়োগ পায় বলেও অভিযোগ আছে। বেতন কম হওয়ায় নিয়োগপ্রাপ্ত নিরাপত্তারক্ষীরা বেপরোয়া হয়ে ওঠে চাঁদাবাজিতে। চাকরি পেতে দেয়া ঘোষের টাকা তুলতে রোগীর স্বজনদের জিম্মি করে চাঁদাবাজিতে মেতে ওঠে তারা। সেবা নিতে আসা মানুষদের অভিযোগ, হাসপাতালে ভর্তি হওয়া প্রত্যেক রোগীর সাথে অন্তত একজন করে স্বজন থাকেন। বিভিন্
২৫ বছর পেরিয়ে সালমান-শাবনূর জুটি:  যেসব কারণে এখনো তারা জনপ্রিয়

২৫ বছর পেরিয়ে সালমান-শাবনূর জুটি: যেসব কারণে এখনো তারা জনপ্রিয়

২৫ বছর পেরিয়েও তুমুল জনপ্রিয় জুটি সালমান-শাবনূর। হঠাৎ কোনো হলে এই জুটির সিনেমা এলে হলে ভিড় লাগে দর্শকের। কোনো অনুষ্ঠানে এই জুটি নিয়ে আলোচনা হলে দর্শক মুগ্ধ হয়ে শোনেন। সবচেয়ে বড় কথা আজও এই জুটি সিনেমার জুটিগুলোর কাছে সেরা হওয়ার মানদণ্ড। প্রজন্মের প্রায় সব তারকারাই সালমান-শাবনূর জুটিকে নিজেদের পছন্দের জুটি বলে মনে করেন। কিন্তু কেন? যেখানে আজকাল কোনো তারকা ৫ বছর পার হলেই আর টিকে থাকছেন না সেখানে কী কারণে এখনো জনপ্রিয় সালমান-শাবনূর জুটি। রোমান্টিক গল্প ক্যারিয়ারে জুটি বেঁধে ১৪টি সিনেমায় অভিনয় করেছেন সালমান-শাবনূর। তার প্রায় সবগুলো ছবিই ছিলো রোমান্টিক প্রেমে ভরপুর কাহিনির। সেইসব ছবিতে যুবক-যুবতীর শ্বাশত আকর্ষণকে ধারণ করে হাজির হতেন তারা। তাদের মুখে দারুণ সব সংলাপ খুব সহজেই দর্শকের মনে দাগ কাটতো। ছবি মুক্তির পর ঘুরেফিরে বাজতো দর্শকের মুখে। শুধু তাই নয়, এই জুটির বেশিরভাগ ছবির ন
ঢালিউড সুপারস্টারের ২০ বছর

ঢালিউড সুপারস্টারের ২০ বছর

শাকিব খানের সঙ্গে বড়পর্দার দর্শকরা লম্বা সময় ধরে পরিচিত। ঢালিউডের কিং খ্যাত এই সফল তারকা আর কদিন পরই পূর্ণ করবেন তার অভিনয় ক্যারিয়ারের ২০ বছর। ১৯৯৯ সালে প্রথম চুক্তিবদ্ধ হন ‘সবাইতো সুখী হতে চায়’ ছবিতে। আফতাব খান টুলু পরিচালিত এ ছবির মাধ্যমে তিনি প্রথম ক্যামেরার সামনে দাঁড়িয়েছিলেন। তবে শাকিব অভিনীত প্রথম মুক্তিপ্রাপ্ত ছবির নাম ‘অনন্ত ভালোবাসা’। সোহানুর রহমান সোহান পরিচালিত এ ছবিটি ১৯৯৯ সালের ২৮শে মে মুক্তি পায়। আর সেই হিসেবে আসছে ২৮ শে মে পূর্ণ হতে যাচ্ছে শাকিব খানের অভিনয় জীবনের বিশ বছর। এই লম্বা সময়ে দর্শকদের টানা ভালোবাসা পেয়েছেন তিনি। লম্বা সময়ের সাফল্যের পেছনে রহস্য কি? উত্তরে শাকিব হেসে বলেন, তেমন কোনো রহস্য নেই। দর্শকরাই আমার মূল শক্তি। তারাই আমাকে শাকিব খান বানিয়েছেন। তাদের জন্য জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার পেয়েছি কয়েকবার। দর্শকদের জন্য এখনো কাজ করে যাচ্ছি। সামনেও তাদের