Month: May 2019

‘পাগল মন’ গানে নিজের রেকর্ড নিজেই ভাঙলেন শাকিব খান

‘পাগল মন’ গানে নিজের রেকর্ড নিজেই ভাঙলেন শাকিব খান

বাংলা ছবির গান ইউটিউবে প্রকাশের পর ১২ কিংবা ২৪ ঘণ্টায় মিলিয়নের বেশি মানুষ দেখেছেন এটা খুব কমই দেখা যায়। এর আগে ‘বসগিরি’ ছবির ‘দিল দিল’ এবং ‘ভাইজান এলো রে’ ছবির ‘বেবি জান’ গান দুটি প্রকাশের পর অল্প সময়ে রেকর্ড পরিমাণে মানুষ দেখেছিল। নতুন খবর, নিজের অর্জিত অতীতের রেকর্ড নিজেই ভাঙলেন দেশের তারকা জুটি শাকিব খান ও বুবলী।  এই নায়কের প্রযোজিত ও অভিনীত ছবি ‘পাসওয়ার্ড’-এর ‘পাগল মন’ শিরোনামের একটি গান প্রকাশ হয় বৃহস্পতিবার (৩০ মে) দুপুরে। ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত গানের ভিউয়ার্স দেখা গেছে ১৬ লাখ ছাড়িয়ে গেছে। যেটা দেশিয় ছবির গানের ক্ষেত্রে অল্প সময়ে ইউটিউবে গানের ভিউয়ে সর্বোচ্চ! সবখানেই হইচই ফেলেছে ‘পাগল মন’, এমনকি ইউটিউব ট্রেন্ডের এক নম্বরে জায়গা করে নিয়েছে গানটি। ভিডিও দেখতে ক্লিক করুন https://youtu.be/QR9Lyub6j30 ইউটিউবে মানুষের হুমড়ি খেয়ে ‘পাগল মন’ দেখার বিষ
প্রবাসে বাংলাদেশী নারী কর্মীরা কেন আত্মহত্যা করেন?

প্রবাসে বাংলাদেশী নারী কর্মীরা কেন আত্মহত্যা করেন?

পরিবারের সচ্ছলতা ফেরাতে ২০১৮ সালে কাজের উদ্দেশে সৌদি আরব যান শাহনাজ। পরিবারের সুদিন ফেরাতে পারেননি তিনি, তার আগেই বেছে নেন আত্মহননের পথ। গত জানুয়ারিতে দেশে আনা হয় মরদেহ। তার পরিবার জানে না শাহনাজ কী কারণে আত্মহত্যা করেছেন। প্রবাসে এ রকম অনেক নারীকর্মীর আত্মহত্যার সঠিক কারণ জানা যায় না। এমনকি জানার চেষ্টাও করা হয় না। হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে প্রবাসী কল্যাণ ডেস্কের হিসাব অনুযায়ী, বিদেশে কাজ করতে গিয়ে গত তিন বছরে আত্মহত্যা করেছেন ৪৪ জন নারীকর্মী। ডেস্কের কর্মকর্তাদের মতে, প্রবাসে মৃত কর্মীর লাশ সরকার নিজ খরচে দেশে আনে। এছাড়া সরকার দাফনের খরচসহ ক্ষতিপূরণেরও ব্যবস্থা করে থাকে। সংশ্লিষ্ট সূত্র জানায়, অনেক পরিবারের সদস্যরা লাশ ফেরত নিতে চান না, বিদেশ থেকে লাশ আনার জন্য আবেদনও করেন না। ফলে বিদেশে কাজ করতে গিয়ে ঠিক কতজন মারা যায় বা আত্মহত্যা করে তার সঠিক হিসাব জানা যায় না। চলতি
ঈদের কেনাকাটা : রাতেও সরব সিলেট

ঈদের কেনাকাটা : রাতেও সরব সিলেট

প্রধান সংবাদ, সিলেট
এই প্রতিবেদন যখন লেখছি তখন রাত ১টা। নগরীর জিন্দাবাজার সড়কে রিকশা-গাড়িগুলো ঠায় দাঁড়িয়ে আছে। বিকট হরণ বাজাচ্ছে একেকটা। কিন্তু সামনে এগুতে পারছে না কেউ। আটকে আছে জ্যামে। আর সড়কের পাশ দিয়ে মানুষ ছুটছে মিছিলের মতো। একজনের সাথে আরেকজনের ধাক্কাধাক্কি লেগে যাচ্ছে প্রায়ই। আর এদের প্রায় সকলের হাতেই শপিং ব্যাগ। এই দৃশ্য কেবল গত বৃহস্পতিবার রাতের নয়। বরং গত কয়েক রাতেরই চিত্র এমন। দিনেও এই একই দৃশ্য। শহরজুড়ে যানজট আর যানজট। শপিং ব্যাগ হাতে ছুটছে মানুষ। ঈদ যত ঘনিয়ে আসছে নগরবাসীর ঈদের কেনাকাটা যেন ততই জমে উঠেছে। একাকার হয়ে যাচ্ছে রাত দিন। বড় বড় শপিংমল আর ফ্যাশন হাউসগুলোতে হুড়মুড় করে ঢুকছেন আর বেরুচ্ছেন ক্রেতারা। ওসব জায়গায় গেলে এখন আর হাঁটতে হয় না। দাঁড়ালেই হয়, মানুষ ধাক্কা দিয়ে আপনাআপনিই এগিয়ে নিয়ে যায়। তবে অধিকাংশ মার্কেটে ইফতারের পর থেকেই জমে বিকিকিনি। তীব্র গরমে দিনে নাভিশ্বাস ওঠছে
‘ক্যারিয়ারের প্রথম জীবনে পুরুষসঙ্গ ভয় পেতাম’

‘ক্যারিয়ারের প্রথম জীবনে পুরুষসঙ্গ ভয় পেতাম’

'ক্যারিয়ারের প্রথম জীবনে পুরুষসঙ্গ ভয় পেতাম' ক্যারিয়ারের প্রথম জীবনে পুরুষসঙ্গ ভয় পেতেন বলে জানিয়েছেন ভারতীয় বাংলা সিনেমার অভিনেত্রী কনিনীকা বন্দ্যোপাধ্যায়। সম্প্রতি মুক্তি পওয়া 'ষড়রিপু' সিনেমায় অভিনয় করেছেন এই অভিনেত্রী। সে প্রসঙ্গে আনন্দবাজার পত্রিকার সঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে নানা বিষয় নিয়ে কথা বলেছেন তিনি। কনিনীকা বলেন, আমি তখন পুরুষসঙ্গ ভয় পেতাম। সিগারেট-মদ খাওয়াকে খারাপ ভাবতাম। লাজুক ছিলাম। এভাবে কি ইন্ডাস্ট্রিতে টিকে থাকা যায় নাকি? ‘তিন এক্কে তিন’ ছবিতে আমার একটা ডায়লগ ছিল —‘ট্যালেন্ট মারিয়ে কিছু হয় না।’ আজ জানি এটা কতটা খাঁটি। ক্যারিয়ারে প্রথম দিকের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমি বুঝেছিলাম চাকার উল্টো দিকে ঘুরছি। সাপলুডো খেলতে গিয়েছিলাম নিয়ম না জেনে। দোষটা আমারই। তাই বারবার সাপের মুখে পড়েছি। লোকে চিট করেছে।  কনীনিকা মানেই প্রচুর সম্পর্ক ভাঙার গল্প-এ প্রসঙ্গে তিনি ব
বিশ্বকাপ জয়ের দাবি আরো জোরালো করলো ইংল্যান্ড

বিশ্বকাপ জয়ের দাবি আরো জোরালো করলো ইংল্যান্ড

ক্রিকেট, ক্রিকেট বিশ্বকাপ-২০১৯
বেন স্টোকসের অলরাউন্ড নৈপুণ্যে দক্ষিণ আফ্রিকাকে ১০৪ রানের বিশাল ব্যবধানে হারিয়ে ঘরের মাঠে ২০১৯ বিশ্বকাপের শুভ সূচনা করলো ইংল্যান্ড। বিশ্বকাপের আগে থেকে কেন তাদেরকে ফেবারিট বলা হচ্ছে, তারও প্রমাণ দিলো স্বাগতিকরা। ওভালে ২ দলের লড়াইটা ছিলো ইংল্যান্ডের খুনে ব্যাটিং বনাম দক্ষিণ আফ্রিকার ধারালো বোলিংয়ের। প্রোটিয়ারা ইংল্যান্ডকে স্লোয়ার দিয়ে ভড়কে দেওয়ার চেষ্টা করলেও ইংলিশদের আটকানো যায়নি বড় স্কোর গড়া থেকে। ৪ হাফসেঞ্চুরির কল্যাণে পুঁজিটা পৌঁছেছে সমৃদ্ধ জায়গায়। জেসন রয়ের ৫৪, জো ‍রুটের ৫১, মরগানের ৫৭ ও বেন স্টোকসের ৮৯ রানই ছিলো স্কোর বোর্ড সচল রাখার জন্য যথেষ্ট। তাতে ৮ উইকেটে সংগ্রহটা দাঁড়ায় ৩১১ রানের! বিশ্বকাপে আর্চারের শুরুটাও হলো স্মরণ করে রাখার মতো। কার্যকরী বোলিংয়ে ৭ ওভারে ২৭ রান দিয়ে নিয়েছেন ৩ উইকেট। ২টি নেন লিয়াম প্লাঙ্কেট ও বেন স্টোকস। একটি করে নিয়েছেন আদিল রশিদ ও মঈন আলী। সংক্ষ
শরীরের এই হাল করে এখন তিনি মৃত্যুঝুঁকিতে (ভিডিও)

শরীরের এই হাল করে এখন তিনি মৃত্যুঝুঁকিতে (ভিডিও)

মার্ভেল কমিক্সের অন্যতম জনপ্রিয় সুপার হিরো হাল্ক। এ কাল্পনিক চরিত্রের শরীর পেশীবহুল। তর্জন গর্জনও ভয়ঙ্কর। দেখতে দানবের মতো। পছন্দের এই সুপার হিরোর মতো হতে চেয়েছিলেন ব্রাজিলের বডি বিল্ডার ভালদির সেগাতো। বিশাল শরীর বানাতে তিনি ইনজেকশন নেয়া শুরু করেন। এক পর্যায়ে তার সে ইচ্ছা পূরণও হয়। কিন্তু ইনজেকশনের ভয়াবহ পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া সম্পর্কে অবহিত করে চিকিৎসকরা তাকে তা নিতে নিষেধ করেন। কে শোনে কার কথা! ২৩ ইঞ্চি পেশী বানাতে আজও ইনজেকশন নিয়ে যাচ্ছেন তিনি। ভালদির সেগাতো পেশায় নির্মাণ শ্রমিক। তিন বছর আগে এসব ইনজেকশন নেয়ার ব্যাপারে চিকিৎসকরা তাকে সতর্ক করে দেন। কারণ এ ইনজেকশন টানা নিতে থাকলে মারাত্মক মৃত্যুঝুঁকিতে পড়তে হতে পারেন তিনি। স্ট্রোকসহ নানা রকম স্বাস্থ্য ঝুঁকি থাকা সত্ত্বেও হাল্কের মতো পেশী, কাঁধের মাংস বাড়াতে প্রথম দিকে সিনথলের ইনজেকশন নেয়া শুরু করেন সেগাতো। এই ইনজেকশন এক ধরনের তে
রমজানে জিনিসপত্রের দাম বাড়েনি, প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ : হাছান মাহমুদ

রমজানে জিনিসপত্রের দাম বাড়েনি, প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ : হাছান মাহমুদ

বাংলাদেশ
আওয়ামী লী‌গের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক এবং তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ ব‌লে‌ছেন, এবা‌রের রমজা‌নে জি‌নিসপ‌ত্রের কোনো দাম বা‌ড়ে‌নি। এ জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হা‌সিনা‌কে ধন্যবাদ দেয়া উ‌চিত। বিএন‌পির নেতাকর্মী‌দের উ‌দ্দে‌শে তি‌নি ব‌লেন, খা‌লেদা জিয়ার ইফতার নি‌য়ে, স্বাস্থ্য নি‌য়ে কোনো রাজনী‌তি কর‌বেন না। খা‌লেদা জিয়া নি‌য়‌মিত রোজা রাখ‌ছেন এবং ইফতার কর‌ছেন। বৃহস্পতিবার বিকেলে রাজধানীর লে‌ডিস ক্লা‌বে শেখ হা‌সিনার স্ব‌দেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপল‌ক্ষে ঢাকা মহানগর দ‌ক্ষিণ আয়ো‌জিত এক আলোচনা সভায় তি‌নি এ কথা ব‌লেন। ঢাকা মহানগর দ‌ক্ষি‌ণের সভাপ‌তি আবুল হাসনাতের সভাপ‌তি‌ত্বে অনু‌ষ্ঠিত এ আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য রা‌খেন আওয়ামী লী‌গের প্রে‌সি‌ডিয়াম সদস্য বেগম ম‌তিয়া চৌধুরী, উপ‌দেষ্টা প‌রিষ‌দের সদস্য অ্যাড‌ভো‌কেট ইউসুফ হো‌সেন হুমায়ুন, বাংলা‌দে‌শের ওয়ার্কার্স পা‌র্টির সভাপ‌তি রা‌শেদ খান মেন
র‌্যাবের ইয়াবা মামলা থেকে খালাস পেলেন পুলিশ কনস্টেবল কবির

র‌্যাবের ইয়াবা মামলা থেকে খালাস পেলেন পুলিশ কনস্টেবল কবির

প্রধান সংবাদ, বাংলাদেশ
র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়নের (র‌্যাব) মাদকবিরোধী বিশেষ অভিযানের সময় ছয় পিস ইয়াবাসহ হাতেনাতে গ্রেফতার মিরপুর মডেল থানার কনস্টেবল কবির হোসেনকে খালাস দিয়েছেন আদালত। গত বৃহস্পতিবার ঢাকা মহানগর হাকিম শাহিনুর রহমান আসামির বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় তাকে বেকসুল খালাস দেন। আদালত সূত্র এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। চলতি বছর ৭ জানুয়ারি রাতে জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়াম এলাকায় মাদকবিরোধী বিশেষ অভিযান চালানোর সময় র‌্যাব সংবাদ পায় যে, মিরপুর মডেল থানাধীন বিভাগীয় উপ-পরিচালক ও জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসের মেইন গেটের সামনে কিছুসংখ্যক লোক মাদক বিক্রি করছে। র‌্যাব সেখানে অভিযান চালিয়ে কবির হোসেনকে হাতেনাতে আটক করে। এরপর তার জিন্স প্যান্ট থেকে ছয়টি ইয়াবা জব্দ করে। ঘটনার পরদিন (৮ জানুয়ারি) তার বিরুদ্ধে মিরপুর মডেল থানায় মামলা করেন র‌্যাব-৪ এর পুলিশ পরিদর্শক কবির উদ্দিন সরকার। পুলিশ হেফাজতে থাকার
আজকে পবিত্র জুমুয়াতুল বিদা

আজকে পবিত্র জুমুয়াতুল বিদা

প্রধান সংবাদ
আজ পবিত্র রমজানের শেষ শুক্রবার। দিনটি মুসলিম উম্মাহর কাছে জুমাতুল বিদা নামে পরিচিত। ইবাদত বন্দেগি ও জিকির-আজকারের মাধ্যমে দিবসটি পালন করেন মুসলমানরা। এ দিন জুমার নামাজ শেষে মহান আল্লাহর দরবারে ক্ষমা ও রহমত কামনা করেন মুসল্লিরা। জুমাআতুল বিদা বলা হয় পবত্রি রমজান মাসের শেষ জুমআকে। এমনিতেই জুমআর দিনটি সপ্তাহের দিনগুলোর মধ্যে অধিক ফযিলতের। রমজান মাসের শেষ জুমআর নামাজের আলাদা ফযিলত ও মর্যাদা রয়েছে। জুমআর নামাজ সম্পর্কে হজরত সামুরাহ রাদিয়াল্লাহু আনহু হতে বর্ণিত, রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, `তোমরা জুমআর নামাজে উপস্থিত হও এবং ইমামের নিকটবর্তী হয়ে দাঁড়াও। কেননা যে ব্যক্তি জুমআর নামাজে সবার পেছনে উপস্থিত হবে, জান্নাতে প্রবেশ ক্ষেত্রেও সে সবার পিছনেই পড়ে থাকবে। (মুসনাদে আহমদ) জুমার দিনটিকে সাপ্তাহিক ঈদ হিসেবে গণ্য করা হয়। এই দিনের ফযিলত ও মর্তবা অনেক বেশি। রাসূল সাল্লাল্ল
বিনামূল্যে সেহরি: ‘বছরে ১১ মাস ব্যবসা করি, এক মাস আল্লাহর খেদমত করি’

বিনামূল্যে সেহরি: ‘বছরে ১১ মাস ব্যবসা করি, এক মাস আল্লাহর খেদমত করি’

ঢাকা-বরিশাল হাইওয়ের একটি রেস্টুরেন্ট। নাম মাতাব্বর হোটেল অ্যান্ড রেস্টুরেন্ট। রেস্টুরেন্টটির বৈশিষ্ট্য হলো রমজানে সেহরির কোনো টাকা রাখেন না প্রতিষ্ঠানটির মালিক।  মালিক মো. আবদুর রশিদ বলেন, ১১ মাস ব্যবসা করি আর রমজানে ফ্রি সেহরি খাওয়াই। সোমবার রাতে ঢাকা থেকে বরিশাল যাওয়ার পথে ওই হোটেলে খেতে যান বরগুনা কোর্টের অ্যাডভোটেক আবদুল্লা আল সাইদ। সেহরি শেষে দোকানি টাকা না রাখায় একটু অবাক হন তিনি। পরে বিষয়টি নিয়ে নিজের ফেসবুকে পোস্ট দেন এবং সঙ্গে জুড়ে দেন সেই মহৎ উদ্যোক্তার ছবি।   তার দেয়া স্ট্যাটাসটি হলো- ‘রমজানের রোজার মধ্যে রাতের বাসে হাইওয়েতে যাতায়াত করা আমাদের জন্য খুব দুশ্চিন্তার বিষয় না হলেও মোটামুটি চিন্তার বিষয়। কারণ ঢাকা-চট্টগ্রাম হাইওয়ের মতো আমাদের ঢাকা-বরিশাল হাইওয়েতে খুব ভালো মানের খাবার হোটেল পাওয়া যায় না। তাই সাহরি খাওয়ার জন্য আমাদের ভরসা করতে