৭০ বছরের বৃদ্ধা মাকে পেটালো পাষণ্ড ছেলে

মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গলে ৭০ বছরের বৃদ্ধা মাকে মেরে গুরুতর আহত করেছে ছেলে। ঘটনাটি ঘটেছে আজ বৃহস্পতিবার (২ মে) উপজেলার সিন্দুরখান ইউনিয়নের গুলেরগাঁও গ্রামে।

শ্রীমঙ্গল থানার ওসি তদন্ত সোহেল রানা জানান, আজ বেলা সাড়ে ১১টায় আহতবস্থায় শ্রীমঙ্গল থানায় অভিযোগ নিয়ে আসেন গুলেরগাঁও গ্রামের আজগর আলীর স্ত্রী ৭০ বছরের বৃদ্ধা ছুকেরা খাতুন। তাঁর হাতে, মাথায় ও বুকে মারাত্মক আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। দ্রুত চিকিৎসার জন্য তাঁকে শ্রীমঙ্গল সদর হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। এ ব্যাপারে আইনানুগ ব্যবস্থাও নেয়া হচ্ছে।

আহত ছুকেরা বেগম জানান, তাঁর দুই ছেলে ও দুই মেয়ের মধ্যে এক মেয়ে মারা গেছে। তাঁর বাবার বাড়ি থেকে পাওয়া ১৫ শতাংশ জমি রয়েছে। এই জমি বড় ছেলে জহুর আলীকে (৪৫) দিয়ে দেয়ার জন্য বহুদিন ধরে তাকে চাপ দিচ্ছেন ছেলে। জমি না দেয়ায় বহুবার তাকে মেরেছেন জহুর। বৃহস্পতিবার সকালে পুনরায় জমি তার নামে দিয়ে দেয়ার জন্য চাপ দেন জহুর। তিনি অপারগতা প্রকাশ করায় ছেলে জহুর একটি কাটা বাঁশ দিয়ে মেরে তাকে আহত করে।

আরো পড়ুন :   বৃদ্ধা মাকে বাঁশ দিয়ে পেটানোয় ছেলে গ্রেফতার

ঘটনার পর প্রতিবেশী ব্যবসায়ী মো. মকসুদ আলী তাঁকে আহতাবস্থায় উদ্বার করে থানায় নিয়ে যান। তিনি জানান, ছেলেমেয়েরা বৃদ্ধাকে খাওয়া-পরা দেয় না। তিনি বৃদ্ধ বয়সে মানুষের বাড়িতে কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করেন।