শিশুকে চেয়ার ছেড়ে দিলেন এরদোয়ান

রাষ্ট্রীয় শিশু দিবসে বিভিন্ন স্কুলের শিশুদের সঙ্গে সময় কাটিয়েছেন তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যিপ এরদোগান।

১৯২০ সালের ২৩ এপ্রিল তুরস্কে প্রথমবার শিশু দিবস পালিত হয়েছিল, সে ধারাবাহিকতায় প্রতিবছরই দেশটিতে এ দিন শিশু দিবস উদযাপন করা হয়।

মঙ্গলবার তুরস্কের প্রেসিডেন্ট কমপ্লেক্সে বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান থেকে আগত শিশুদের সঙ্গে কথা বলেন প্রেসিডেন্ট এরদোগান।

এ সময় শিশুদের উৎসাহ দিতে ক্লাস সিক্সের ছাত্র আওযান সুজে ইয়াতাকে নিজের চেয়ারে বসান তিনি। সুজে ইয়াতাকে প্রেসিডেন্টের আসনে বসিয়ে পাশের চেয়ার থেকেই শিশু দিবসের বক্তৃতা দেন এরদোগান।

এ সময় শিশুদের উদ্দেশে তিনি বলেন, তোমরাই আগামীর ভবিষ্যৎ। আমার দৃঢ়বিশ্বাস তোমরা নিজেদের মেধা ও মননে উদ্দীপ্ত হয়ে দেশ ও জাতিকে এগিয়ে নেবে। আজকের এই দিবসে আমি বিশ্বের সব শিশুর জন্য শুভকামনা কামনা করছি।

আরো পড়ুন :   শ্রীলঙ্কায় হামলার নিন্দা জানালেন এরদোয়ান-ইমরান

শিশুদের মনোবল না হারানোর পরামর্শ দিয়ে এরদোগান বলেন, তোমাদের হাত ধরেই বিশ্ব এগিয়ে যাবে। তাই কখনও মনোবল হারাবে না। তোমাদের মেধাকে সর্বোচ্চ কাজে লাগাতে হবে।

তুর্কি শিশুদের নিজেদের জাতীয়বাবোধ স্মরণ করিয়ে জনপ্রিয় এ প্রেসিডেন্ট বলেন, নিজেদের স্বপ্নপূরণে সব বাধাকে তোমাদের জয় করতে হবে। কখনও ভুলবে না যে, তোমরা ২০০০ বছরের সোনালি ইতিহাস রচনাকারী জাতির সন্তান।

Leave a Reply

Your email address will not be published.