ভারতীয় ভিসা আবেদনে যেসব বিষয়ে খেয়াল রাখবেন

                     
ঠিক থাকার পরও ভারতীয় ভিসা পান না অনেকে। সামান্য কিছু ভুলের কারণে বাতিল হচ্ছে আপনার ভিসার আবেদন। সেই ভুলগুলো যেন না হয় সে জন্য ফেসবুকে সচেতনমূলক পোস্ট করেছে ভারতীয় ভিসা অ্যাপ্লিকেশন সেন্টার। এক নজরে দেখে নিন ভারতীয় ভিসা আবেদনে যেসব বিষয়ে খেয়াল রাখবেন –

১. ডিজিটাল ছবি ও একটি রঙ্গীন ছবি উভয় ছবিই একই হতে হবে, আবশ্যিক এবং তিন মাসের কম সময়ের মধ্যে তোলা হতে হবে। ভিসা আবেদনের একেবারে ডান দিকের শীর্ষে আঠা দিয়ে আটকাতে হবে (পিনকৃত বা স্ট্যাপল করা না)।

২. সব বাধ্যতামূলক কলাম সতর্কতার সাথে পূরণ করুন। ভুল তথ্য ভিসা আবেদনকে সরাসরি প্রত্যাখ্যানের দিকে নিয়ে যাবে।

আরো পড়ুন :   সাজুগুজু করে যাইনি বলে ছাত্রলীগে পদ পাইনি : জেরিন দিয়া

৩. ভবিষ্যৎ রেফারেন্সের জন্য ওয়েব ফাইল নম্বর নোট করে রাখুন।

৪. ভিসা আবেদনের একেবারে ডান দিকের শীর্ষে অঙ্কিত বক্সে ও ভিসা আবেদনের শেষের পাতায় স্বাক্ষর করুন।

৫. আপনার আইপি এড্রেস লগ করা থাকবে। কল্পিত/বানোয়াট এন্ট্রি দিবেন না।

বিশেষ দৃষ্টি আকর্ষণ- (ক) চিহ্নিত কলাম পূরণ বাধ্যতামূলক।

খ) কলাম এ – ব্যক্তিগত বিবরণ: নাম, বংশগত নাম এবং অন্যান্য বর্ণনা পাসপোর্টে উল্লেখিত বিষয়ের সাথে মিল থাকতে হবে।

গ) কলাম বি – পাসপোর্ট বিবরণ: পাসপোর্ট নং, ইস্যুকৃত স্থান, ইস্যুকৃত তারিখ এবং মেয়াদোত্তীর্ণের তারিখ যেমনটি আপনার বিদ্যমান বৈধ পাসপোর্টে উল্লেখিত, একই হতে হবে।

ঘ) কলাম সি – আবেদনকারীর যোগাযোগের বিবরণ: বর্তমান ঠিকানা হিসেবে আপনার ইউটিলিটি বিলে যা উল্লেখিত, তার সাথে মিল রেখে হতে হবে। ই-মেইল আইডি ও মোবাইল সঠিক হতে হবে।

আরো পড়ুন :   জিপিএ ৫ পেয়েছে ক্ষুদে গানরাজ চ্যাম্পিয়ন পুষ্পিতা

ঙ) কলাম ডি – পারিবারিক বিবরণ: খালি রাখা উচিৎ নয়। পূর্ববর্তী জাতীয়তা উল্লেখ করা বাধ্যতামূলক।

চ) কলাম ই – ভিসা অনুসন্ধান বিবরণ: আবশ্যিক

ছ) কলাম এফ – পূর্ববর্তী ভ্রমণ: খালি রাখা উচিৎ নয় (পূর্ববর্তী ভিসার নম্বর এবং ইস্যুর তারিখ উল্লেখযোগ্য)।

জ) কলাম আই – দু’জন রেফারেন্সের বিবরণ: আসল যোগাযোগের বিবরণ প্রদান করুন।