ওসমানী মেডিকেল হাসপাতালে নবজাতক রেখে বাবা-মা উধাও

নবজাতক শিশুকে হাসপাতালে রেখে পালিয়েছে তার বাবা-মা। পরে অসুস্থ নবজাতককে চিকিৎসা দিয়ে হাজির করা হয় আদালতে। এ ঘটনায় তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে স্থানীয়দের মাঝে।

আদালত মঙ্গলবার নবজাতক শিশুটিকে এক পুলিশ কনস্টেবলের জিম্মায় দিয়েছেন। এ ঘটনা ঘটেছে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে ওসমানী হাসপাতালের পুলিশ বক্সের ইনচার্জ ওমর ফারুক জানান, নবজাতক শিশুটিকে রেখে বাবা-মা উধাও হয়ে যাওয়ার পর তারা সবাই মিলে শিশুটির দেখভাল করেন।

অসুস্থ শিশুটিকে হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হয়। মঙ্গলবার শিশুটিকে সুস্থ হিসেবে হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র দেয়া হয়। এরপর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে শিশুটিকে মঙ্গলবার সিলেট অতিরিক্ত মুখ্য মহানগর হাকিম আদালতের জিম্মায় হস্তান্তর করা হয়।

আরো পড়ুন :   ১ নং জালালাবাদ ইউপি আ.লীগের কাউন্সিল সম্পন্ন

আদালতের কর্মকর্তা আব্দুল ওয়াদুদ জানান, নবজাতক শিশুটিকে নিতে আদালতে আবেদন করেন পুলিশ কনস্টেবল রবিউল হোসেন। তিনি আদালতে কর্মরত। আদালত আবেদন বিবেচনা করে শিশুটিকে রবিউলের জিম্মায় দেন।

ওসমানী হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, গত ১৭ মে সকালে ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের শিশু বিভাগে নবজাতক ওই শিশুটিকে নিয়ে ভর্তি হন এক দম্পতি। হাসপাতালের রেজিস্ট্রারে শিশুটির বাবার নাম শিমুল আহমদ ও মায়ের নাম আয়শা বেগম এবং ঠিকানা শিবগঞ্জ সোনারপাড়া লিখানো হয়। ওইদিন সন্ধ্যায় শিশুটিকে রেখে উধাও হয়ে যান ওই ‘বাবা-মা’।